বুধবার, ২২ মে ২০২৪ । ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সমমনা পরিষদ বনশ্রীর বার্ষিক বনভোজন ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উদযাপিত

অনলাইন ডেস্ক »

মজার মজার অনুষ্ঠান আর সুস্বাদু খাবার পরিবেশনের মাধ্যমে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ, ভুলতায় অনুষ্ঠিত হয়েছে সমমনা পরিষদ, বনশ্রীর বার্ষিক বনভোজন ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সুবর্ণগ্রাম অ্যামিউজমেন্ট পার্ক এন্ড রিসোর্টে শনিবার (১২ নভেম্বর) সকাল থেকে সারাদিনব্যাপী এ অনুষ্ঠানে সংগঠনের সকল সদস্য ও বনশ্রী সোসাইটির সন্মানিত সদস্যগণ অংশ নেন।

রৌদ্রোজ্বল সকালে নিরিবিলি এ রিসোর্ট ধীরে ধীরে হয়ে যায় কানায় কানায় পরিপূর্ণ। দিনের শুরুতেই সংক্ষিপ্ত সভায় অংশ নেন সমমনা পরিষদের সম্মানিত সভাপতি শাহাবুদ্দিন শিকদার। এসময় মাদকমুক্ত ও সুশৃঙ্খল সমাজ গঠনে ভূমিকা রাখা এবং বনশ্রীর সোসাইটির অব্যাবস্থাপনাকে দ্রুত সমাধান করার আশ্বাস দেন। শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি বলেন, তরুণরা এগিয়ে আসলেই সমাজ এগিয়ে যাবে। সমমনা পরিষদ এমনই একটি সংগঠন যেখানে বনশ্রীর তরুণ থেকে শুরু করে বৃদ্ধসহ সকলের কল্যাণ নিহিত। আমরা সমাজ গঠনে কাজ করছি। যা প্রকারান্তরে সরকারকেই সহযোগিতা করছে। সংগঠনের সকলকে ভবিষ্যতেও এসব কার্যক্রম চালিয়ে যাবার আহ্বান জানানো হয়।

সভায় উপস্থিত ছিলেন রেজুয়ান আহমেদ কচি, মিজানুর রহমান, নূরুল আলম, এম এ মতিন, মহিন উদ্দিন, মহসিন সিকদার, জাকির হোসেন মৃদুল, সাইফুদ্দিন কামাল, ফয়েজ আহমেদ, ইসহাক আহমেদ, মুক্তিযোদ্ধা হেদায়েতুল বারী, ইন্তাজ আলী, আবু মুসা, নূর আহমেদ সহ সংগঠনের নেতাকর্মীরা। এছাড়াও অংশ নেন গ্রীন সোসাইটি বিডির সদস্য, বনশ্রী পাবলিক লাইব্রেরীর সদস্য, বনশ্রী ব্লাড ডোনার ক্লাব এর সদস্যহ বনশ্রীর কয়েকটি সেচ্ছাসেবী সংগঠন।

সকাল ৭ টায় বনশ্রী ই ব্লক সমমনা পরিষদ এর কার্যালয়ের সামনে থেকে এসি বাস ছাড়ে এরপর রিসোর্টে নাস্তার পর্ব শেষ করে শুরু হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এতে অংশগ্রহণ করেন সমমনা পরিষদ সদস্য ও পরিবারের লোকজন। এরপর শুরু হয় দুপুরের খাবার। দেশীয় সবজির সঙ্গে পোলাও ভাত, মুরগী,গরু, ডাল,ভুনা ডালসহ পরিবেশন করা হয় সুস্বাদু সব খাবার। মৃদুমন্দ দখিনা সমীরণ দিনে যেনো এক টুকরো একান্নবর্তী পরিবার নেমে আসে পুরো হল রুম জুড়ে।

দুপুরের খাওয়া শেষে শুরু হয় আমন্ত্রিত অতিথি শিল্পীদের গান পরিবেশনা সেখানে গান পরিবেশন করেন, ম্যাজিক বাউলিয়ানা ক্ষ্যাত কন্ঠ শিল্পী গামছা পলাশ। অবসর সময়ে অনেকে হ্রদের শীতল পানিতে সাঁতার কাটেন। কেউ কেউ মাছ শিকার করেন। এ ছাড়াও অনুষ্ঠিত হয় র‍্যাফেল ড্র। র‍্যাফেল ড্রতে বিভিন্ন ধরনের আকর্ষণীয় পুরস্কার প্রদান করা হয়।

এতে আয়োজকদের পৃষ্ঠপোষকতায় প্রথম পুরস্কার এলইডি টিভি, ফ্রিজ, হটপট, ডিনার সেট, মোবাইল, আকর্ষণীয় ২০ টি উপহার দেয়া হয়।

পুরস্কারপ্রাপ্তদের হাতে উপহার তুলে দেন সমমনা পরিষদের সভাপতি শাহাবুদ্দিন শিকদার ও সংগঠনের নেতা কর্মীরা।

অনুষ্ঠানে আগত সংবাদকর্মীরা বলেন, এমন একটি সফল আয়োজনের জন্য সমমনা পরিষদ, বনশ্রী’র নেতারাসহ যেসব স্বেচ্ছাসেবীরা রাতদিন পরিশ্রম করে বনভোজনকে সাফল্যমণ্ডিত করেছেন তারা সবাই প্রশংসার দাবি রাখেন।

আপনার মন্তব্যটি লিখুন
শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »